সমবায় সমিতির ব্যবসা খারাপ হয়ে যায় কেন?

বর্তমানে বাংলাদেশেসমবায় বহুল প্রচলিত একটি শব্দ একেবারে গ্রামেগঞ্জে ছিটিয়ে রয়েছে হাজার হাজার সমবায় সমিতি প্রথমদিকে মহৎ উদ্দেশ্য থাকলেও পরবর্তীতে আর্থিক কেলেঙ্কারিতে পড়ে বিভিন্ন রকম সমস্যার সূত্রপাত হয় ফলাফল স্বরূপ সমবায় সমিতির ব্যবসা খারাপ হয়ে যায় অথবা চিরতরে বন্ধ হয়ে যায় গবেষণায় দেখা গেছে যে, এর মূল সমস্যা হচ্ছে হিসাব নিকাশ সংক্রান্ত যেহেতু এটা একটা আর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করে সুতরাং এখানে কার্যক্রমের ৯০ শতাংশই আর্থিক বিবরণী তথা অর্থসংক্রান্ত। 
বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে অদক্ষ জনশক্তি, দুর্বল একাউন্টস মেন্টেন করার কারণে সমিতিগুলো হিসেব নিকেশ সংক্রান্ত জটিলতায় পড়ে এক সময় বন্ধ হয়ে যায় অথবা উন্নতি থেকে বঞ্চিত হয় এক্ষেত্রে ভালো সমাধান হতে পারে মাইক্রোসফট এক্সেল এর মাধ্যমে হিসাব নিকাশ করা কিন্তু হিসেব যেহেতু দৈনন্দিন ব্যাপার এবং প্রায় প্রতিদিন শতাধিক বা হাজারখানেক সদস্যের ডাটা আপডেট হয় সেহেতু এক্সেল ব্যবহার করা যুক্তিযুক্ত নয়। 
 
এক্ষেত্রে হিস্টোরিক্যাল ডাটাবেজ বা কাস্টমাইজ সফটওয়্যার ইউজ করতে হয় যেগুলোর মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন এভেলেবেল রয়েছে এক্ষেত্রে একটি উদাহরণ হতে পারে সমিতি কিপার অর্থাৎ সমবায় ব্যবস্থাপনা সফটওয়্যার এর মাধ্যমে সঞ্চয় থেকে শুরু করে ঋণ এর মত জটিল সব ব্যাপার মাত্র । মাউস ক্লিকের মাধ্যমেই তথ্যাদি সুন্দর ভাবে সংরক্ষণ করা যায় এবং মোবাইল অ্যাপস এর মাধ্যমে খুব সহজেই ডাটাগুলো ইনপুট দেওয়া যায় এবং তাৎক্ষণিক রিপোর্ট পাওয়া যায় ।  অনলাইন ভিত্তিক হওয়ার কারণে যে কোন স্থান থেকে এটি পূর্ণাঙ্গ রিপোর্টিং দেখতে পাওয়া যায়
 
বিস্তারিত বিবরণ পাওয়া যাবে এই লিংকে http://somitykeeper.com/